ঈষাণ না ভরত-টিম ম্যানেজমেন্ট এখনও দ্বিধাগ্রস্ত :-

নিয়মিত উইকেটরক্ষক ঋষভ পন্থের অনুপস্থিতিতে বদলি হিসেবে শ্রীকর ভরত এখনও পর্যন্ত যা প্রদর্শন করেছেন তাতে রাহুল দ্রাবিড়রা সাংঘাতিক প্রভাবিত এমন কোন ইঙ্গিত নেই। ঘরোয়া ক্রিকেটে নজরকাড়া পারফরম্যান্স এর সুবাদে জাতীয় দলে তার সুযোগ মিললেও প্রথম তিন টেস্টে উইকেটের পেছনে তাকে খুব আহামরি মনে হয়নি। ঘূর্ণি উইকেটে ভারতীয় স্পিনারদের বলে কিপিং করার ক্ষেত্রে তার সহজাত দক্ষতার ঘাটতি টিম ম্যানেজমেন্ট এর খাতায় খুব বেশি নম্বর পাচ্ছে না।ব্যাটসম্যান হিসেবেও তাকে আশানুরূপ বিশ্বস্ত মনে না হ‌ওয়ার কারণে আহমেদাবাদ টেস্টে ঈষাণ কিষেনের ভাগ্যে শিকে ছিঁড়বে কিনা সে নিয়ে জল্পনা বেড়েছে।যদিও রোহিত শর্মার বক্তব্যে শিখর ভরত বাদ পড়ছেন এমন সম্ভাবনাকে সরকারিভাবে গুরুত্ব দেওয়া হয়নি। বরং ভরতের ওপর দল পরিচালন সমিতির আস্থা যে এখনও অটুট আপাতভাবে সেই মতবাদকেই মান্যতা দেওয়ার মধ্যে স্পষ্ট উইকেটকিপার বদলের সম্ভাব্য জল্পনা কল্পনাকে প্রকাশ্যে আমল দিতে আপাতত রাজী নয় ভারতীয় দল।

INDVA

কাজেই বাংলাদেশ সফরে দ্বিশতরানকারী বাঁ হাতি উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান চতুর্থ টেস্টে প্রথম একাদশে থাকবেন কিনা সে প্রশ্নে ধোঁয়াশা থেকেই যাচ্ছে। ঋষভের মত আক্রমণাত্মক ব্যাটসম্যানের অভাব যে এই সিরিজে বারবার অনুভূত হচ্ছে সেটা স্বীকার করে নিতে রোহিতের কোন আপত্তি নেই তবে বিকল্প হিসেবে ঈষাণ কিষেনের গ্রহনযোগ্যতা তার কাছে কতখানি প্রাধান্য পাচ্ছে সেটা জানা সম্ভব হচ্ছে না। এমনিতেই পিচ নিয়ে বিতর্কের পটভূমিতে ভারতীয় দলের সিদ্ধান্তহীনতার দূর্বলতা সুস্পষ্ট তার‌ওপর প্রথম একাদশ নির্বাচন নিয়েও অহেতুক দোদুল্যমানতা থেকে পরিস্কার বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ওঠার ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ আমেদাবাদ টেস্ট শুরুর আগে যথেষ্ট চাপে টিম ইন্ডিয়া।